Breaking News

প্রীতির সঙ্গে সংঘাত!‌ কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ছাড়তে পারেন বীরু



আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ প্রীতি জিন্টার সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছে বীরেন্দ্র শেহবাগের?‌ একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম এমনই দাবি করেছে। জল এতদূর গড়িয়েছে যে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মেন্টর পদ থেকেই হয়তো সরে যেতে পারেন বীরু। সূত্র অনুযায়ী বিতর্কের সূত্রপাত গত মঙ্গলবার কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব বনাম রাজস্থান ম্যাচের পর। 



ওই ম্যাচে পাঞ্জাবকে হারতে হয়েছিল রাজস্থানের কাছে। ১৫৮ রানের লক্ষ্য তুলতে ব্যর্থ হয় পাঞ্জাব। এতেই নাকি মাথা ঠিক রাখতে পারেননি দলের অন্যতম মালিক প্রীতি জিন্টা। তিনি ম্যাচ শেষে চলে আসেন ড্রেসিংরুমে। ম্যাচের রণনীতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। প্রীতির বক্তব্য ছিল, রাজস্থানের বিরুদ্ধে ৩ নম্বরে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে পাঠানো নিয়ে। যেখানে করুণ নায়ার কিংবা মনোজ তেওয়ারির মতো ব্যাটসম্যানরা ডাগআউটে বসে ছিলেন। অশ্বিন আবার শূন্য রানে আউট হন। এতেই আরও ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন প্রীতি। 



সূত্রের দাবি, প্রীতি সরাসরি বীরুর উপরেই যাবতীয় দোষ চাপিয়েছেন। যদিও শেহবাগ গোটা পরিস্থিতি ঠাণ্ডা মাথায় সামলানোর চেষ্টা করেন। প্রীতির বক্তব্য ছিল ‘‌কোনও প্রয়োজন ছিল না এইরকম রণনীতি নেওয়ার। দল জয়ের রাস্তায় ছিল। এখন পরীক্ষানিরীক্ষার দরকার কী।’‌ মাথা ঠাণ্ডা রাখলেও এই বিষয়টি যে শেহবাগ ঠিকভাবে নেননি তা ফ্রাঞ্চাইজির বাকি মালিকদের বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি। যদিও বাকি মালিকদের দাবি বিষয়টি এমন কিছুই নয়। দু’‌জনকে নিয়ে ব্যাপারটি তাঁরা মিটিয়ে নেবেন। প্রীতি অবশ্য কোচিং স্টাফদের সঙ্গে অসভ্যতা আগেও করেছেন। ২০১৬ সালে টানা ব্যর্থতার জন্য তৎকালীন পাঞ্জাব কোচ সঞ্জয় বাঙ্গারকে সরাসরি দোষারোপ করেছিলেন প্রীতি। তাঁকে চাকরি থেকেও সরে যেতে হয়েছিল। 
ফেসবুক ক্রমাগত আমাদের গ্রুপ শেয়ারিং ব্লক করে চলেছে, সুতরাং, খেলাধুলা সম্পর্কিত সমস্ত খবর সবার আগে পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইকের মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ রাখুন, পোস্টটি পছন্দ হলে শেয়ার করতে অবশ্যই ভুলবেন না কিন্তু, লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজে
[pullquote align="normal"]
loading...
loading...
[/pullquote]

No comments