Breaking News

মোহন বাগানেই সুখদেব সিং । বর্তমান




নিজস্ব প্রতিনিধি,কলকাতা: প্রায় দু’সপ্তাহ আগে সংবাদ মাধ্যমে ই- মেল পাঠিয়ে ইস্ট বেঙ্গল ক্লাব দাবি করেছিল মিনার্ভার দীর্ঘদেহী স্টপার সুখদেব সিং আগামী মরশুমে লাল হলুদ জার্সি পরে খেলবেন। পরদিনই মিনার্ভা পাঞ্জাব এফ সি’র মালিক রঞ্জিত বাজাজ জানান,‘ সুখদেব সিংয়ের সঙ্গে আমাদের চুক্তি আছে। আমাদের নতুন চুক্তির ২৫ শতাংশ না দিয়ে সুখদেব সিং কিংবা দীপক দেবরানী কোনও ক্লাবে খেলতে পারবে না। আমাদের সঙ্গে ওদের এজেন্টের এমনই চুক্তি।’



ইস্ট বেঙ্গলের পক্ষে আলভিটো পাঞ্জাবে গিয়ে ডিল করার চেষ্টা করেন। তাঁর দেওয়া তথ্য অনুসারে ইস্ট বেঙ্গল ই-মেল পাঠায় সংবাদ মাধ্যমে। কিন্তু সেই সুখদেব সিংকে সোমবার সরকারিভাবে তুলে নিয়ে মোহন বাগান বেইজ্জত করল ইস্ট বেঙ্গলকে। মোহন বাগান ফুটবল টিমের দায়িত্বে এখন সচিব অনুগামীরা থাকলেও পূর্ব প্রতিশ্রুতি মতো ২৫তম সদস্য হিসাবে সুখদেব সিংকে সই করালেন সহ সচিব ও অর্থ সচিবই। সইয়ের পর যাবতীয় কাগজপত্র তাঁরা পাঠিয়ে দেন সচিবের কাছে। সচিব প্রথমে সহ সচিব-অর্থ সচিবের চুক্তি করা ২৫ জন ফুটবলারকেই রেখে দেওয়া হবে বলে জানান। আবার গত শুক্রবার তিনি বলেন,‘২৫ জনের চুক্তি রিভিউ হবে।’ কিন্তু তাঁর মন্তব্যর তিন দিনের মধ্যেই আজ মোহন বাগানের নতুন ফুটবল সচিব ওই চুক্তিবদ্ধ ফুটবলারদের মধ্যে যাঁরা কলকাতায় আছেন তাঁদের ডেকেছেন। সংখ্যাটি প্রায় বারো। 



ফুটবল সচিব সোমবার জানিয়েছেন,‘আজ কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তীর সঙ্গে আলোচনায় বসছি কলকাতা লিগের প্রস্তুতির জন্য। টানা আট বছর আমরা লিগ পাইনি। নির্বাচনের আবহে হবে কলকাতা লিগ। এবার জিততেই হবে স্থানীয় লিগ। শিলটনদের মতো স্থানীয় ছেলেদের সঙ্গে আলোচনা করে নেব যাতে সাম্প্রতিক ডামাডোলের প্রভাব দলে না পড়ে। কথা বলব গোলরক্ষক কোচ অর্পণ দে’র সঙ্গেও। আলোচনা হবে ফিজিক্যাল ট্রেনার নিয়োগ নিয়েও।’ অর্থ সচিবরা চাইছেন ব্যারেটোর সুপারিশ করা এক ব্রাজিলিয়ানকে আনতে। তবে ক্লাবে অর্থাভাব হলে গত বছরের চেতলাবাসী ট্রেনারকেই নেওয়া হতে পারে। কিম কিমার পর সুখদেবের মতো স্টপারকে পেয়ে খুশি শঙ্করলাল। এদিকে, শিলটন পালের আকাদেমির উদ্বোধন ১০ জুন।

ফেসবুক ক্রমাগত আমাদের গ্রুপ শেয়ারিং ব্লক করে চলেছে, সুতরাং, খেলাধুলা সম্পর্কিত সমস্ত খবর সবার আগে পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইকের মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ রাখুন, পোস্টটি পছন্দ হলে শেয়ার করতে অবশ্যই ভুলবেন না কিন্তু, লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজে
[pullquote align="normal"]
loading...
loading...
[/pullquote]

No comments