Breaking News

তীরে এসে তরি ডুবল বার্সেলোনার । বর্তমান


ম্যাচের নায়ক বোয়েতেং, হতাশ কুটিনহো, 

অপরাজিত রইল না ভালভার্দের দল



লেভান্তে-৫                                 বার্সেলোনা-৪
(বোয়েতেং-হ্যাটট্রিক, বারধি-২) (কুটিনহো-হ্যাটট্রিক, সুয়ারেজ)

ভ্যালেন্সিয়া, ১৪ মে: অপরাজিত লিগ চ্যাম্পিয়ন হতে পারল না বার্সেলোনা। লা লিগার শেষ ম্যাচে লেভান্তের কাছে হারতে হল আর্নেস্তো ভালভার্দের দলকে। স্প্যানিশ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তীরে এসে তরি ডুবল বার্সেলোনার। আর কাতালন ক্লাবটির সমর্থকদের অভিব্যক্তি, ‘শেষ ম্যাচেই পচা শামুকে পা কাটল’। ৩৭ রাউন্ড পর্যন্ত অপরাজেয় থেকেও শেষ পর্যন্ত রেকর্ড গড়তে না পেরে হতাশ জেরার্ড পিকে-ফেলিপে কুটিনহোরা। এই হার তাঁরা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না। 
রবিবার ন’গোলের ম্যাচে দু’টি হ্যাটট্রিক হয়েছে। লেভান্তের প্রতিশ্রুতিসম্পন্ন স্ট্রাইকার ইম্যানুয়েল বোয়েতেং ও বার্সেলোনার ব্রাজিলিয়ান তারকা ফেলিপে কুটিনহো তিনটি করে গোল পেয়েছেন। উল্লেখ্য, ২০০৫ সালে বার্সেলোনার বিরুদ্ধে লা লিগায় শেষ হ্যাটট্রিকটি করেছিলেন ডিয়েগো ফরলান। তখন তাঁর গায়ে ভিয়ারিয়ালের জার্সি। তারপর দীর্ঘ সময় অতিক্রান্ত। সোমবার ফরলানের কৃতিত্ব স্পর্শ করলেন ঘানার বোয়েতেং। লেভান্তের হয়ে বাকি দু’টি গোল করেন বারধি। বার্সেলোনার অপর গোলদাতা লুই সুয়ারেজ। তাঁর গোলটি পেনাল্টি থেকে। 
কেন শেষ ম্যাচে হারতে হল বার্সেলোনাকে? বিশেষজ্ঞদের ধারণা, মাঝমাঠ এবং রক্ষণের ভুলই এর সবচেয়ে বড় কারণ। মেসি বিশ্রামে থাকায় লেভান্তের রক্ষণ ও মাঝমাঠ নিশ্চিন্তে খেলেছে। প্রতিপক্ষ বার্সেলোনাকে গুরুত্ব দিলেও সমীহ করেনি তারা। দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম ১১ মিনিটের মধ্যে প্রতি-আক্রমণে উঠে তিনটি গোল করে তারা বিপক্ষকে চাপের সাগরে ফেলে দেয়। তারপর ফেলিপে কুটিনহো ও লুই সুয়ারেজ চেষ্টা করেও দলকে এক পয়েন্ট এনে দিতে পারেননি। চলতি মরশুমে বারবার দেখা গিয়েছে, বার্সার উইং ব্যাকরা আক্রমণে উঠে সময়মতো নামতে ব্যর্থ। লেভান্তে এই সুযোগ পুরোপুরি কাজে লাগিয়েছে। হতাশ করেছেন লেফট ব্যাক জর্ডি আলবা। 
ম্যাচের নবম মিনিটে বোয়েতেংয়ের গোলে লিড নেয় লেভান্তে (১-০)। এরপর দুই পক্ষই সুযোগ পেয়ে তা কাজে লাগাতে পারেনি। ৩০ মিনিটে দলের ও নিজের দ্বিতীয় গোল করেন বোয়েতেং (২-০)। দু’টি গোলের নেপথ্যেই দায় রয়েছে বার্সা ডিফেন্ডারদের। আট মিনিট পরে কুটিনহো ব্যবধান কমান (২-১)। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধের প্রারম্ভিক পর্বে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ভালভার্দের দলের রক্ষণ। ৪৬ মিনিটে বারধি হার মানান মার্ক আন্দ্রে টার স্টেগেনকে (৩-১)। তিন মিনিট পরেই হ্যাটট্রিক সম্পূর্ণ বোয়েতেংয়ের (৪-১)। এখানেই শেষ নয়। ৫৬ মিনিটে বার্সেলোনার জাল কাঁপান বারধি (৫-১)। এরপর ৫৯ মিনিটে কুটিনহোর দ্বিতীয় গোল (৫-২)। পাঁচ মিনিট পরেই দুরন্ত শটে লেভান্তের গোলরক্ষককে হার মানিয়ে হ্যাটট্রিক কুটিনহোর (৫-৩)। ৭০ মিনিটে পেনাল্টি থেকে বার্সেলোনার শেষ গোল লুই সুয়ারেজের (৫-৪)।
ফেসবুক ক্রমাগত আমাদের গ্রুপ শেয়ারিং ব্লক করে চলেছে, সুতরাং, খেলাধুলা সম্পর্কিত সমস্ত খবর সবার আগে পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইকের মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ রাখুন, পোস্টটি পছন্দ হলে শেয়ার করতে অবশ্যই ভুলবেন না কিন্তু, লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজে
[pullquote align="normal"]
loading...
loading...
[/pullquote]

No comments