Breaking News

পরিত্রাতা সেই টুটু বসুই । এক কোটি টাকা দেবার ঘোষণা




নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মোহন বাগানের পদত্যাগ নাটকে সোমবার সন্ধ্যায় নাটকীয় মোড়। গত দেড় মাস সচিবকে তোপ দাগা হলেও সোমবার সন্ধ্যায় সভাপতি হঠাৎ মোহন বাগান সচিবকে একটি আবেগমথিত ই-মেল করেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘মোহন বাগান ক্লাব নিয়ে বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত রিপোর্টে আমি ব্যথিত এবং মর্মাহত। ক্লাবের সদস্য এবং সমর্থকদের জন্য সত্যিই খারাপ লাগছে। মোহন বাগানের হয়ে ঘাম-রক্ত ঝরিয়ে ফুটবলাররা গত তিন মাস পেমেন্ট পাচ্ছেন না এটা দেখেও আমি দুঃখিত। 



আমাদের মধ্যে মতের মিল নাও থাকতে পারে। কিন্তু তার প্রভাব ফুটবলারদের মধ্যে না পড়াই বাঞ্ছনীয়। কারণ ফুটবলাররা আমাদের ক্লাবকেই গর্বিত করেছেন। ফুটবলাররা পেমেন্ট না পাওয়ায় ক্লাবের সম্মানহানি হচ্ছে। এই প্রেক্ষাপটে আমি এক কোটি টাকা ক্লাব তহবিলে দিচ্ছি।’ মঙ্গলবার এই টাকা ট্রান্সফার হবে মোহন বাগানের ফান্ডে।


তবে ঘটনা হল, মোহন বাগান ফুটবল দল গোটা মরশুম সভাপতি- সহ সচিবের কোম্পানি রিপ্লে’র লোগো পড়ে খেলেছিলেন। এবার মোহন বাগান খেলে নতুন কোম্পানির নামে। ১ আগস্ট ওই কোম্পানি যাত্রা শুরুর পর সহ সচিব ও অর্থ সচিবের অক্লান্ত পরিশ্রমে চারটি স্পনসরের দেওয়া অর্থ জমা পড়লেও রিপ্লে’র কোনও অর্থ জমা পড়েনি। এই নিয়ে মোহন বাগান সচিব আই লিগে খেলা শেষ হওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে বর্তমান পত্রিকায় দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রশ্ন তোলেন। যা দেখে সভাপতি যারপরনাই কূপিত হন। 



এই এক কোটি রিপ্লের লোগো পরে খেলার জন্য স্পনসরশিপ মানি। আগের মতো অনুদান নয়। সচিব সোমবার দুপুরে সব অ্যাকাউন্টস চেয়ে নেন। তারপরেই সভাপতির কোটি টাকা দেওয়ার ঘোষণা। তবে এটা ঘটনা জিএসটি শুরুর জন্য গত জুনেই সভাপতি ইউনাইটেড মোহন বাগান ফুটবল টিম প্রাইভেট লিমিটেডে কিছু অর্থ দেন। যা ২০১৭-১৮ মরশুমের জন্য। কিন্তু সেটা খরচ হয়েছিল ২০১৬- ১৭ মরশুমের বকেয়া মেটাতে।

সৌজন্যে - বর্তমান
ফেসবুক ক্রমাগত আমাদের গ্রুপ শেয়ারিং ব্লক করে চলেছে, সুতরাং, খেলাধুলা সম্পর্কিত সমস্ত খবর সবার আগে পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইকের মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ রাখুন, পোস্টটি পছন্দ হলে শেয়ার করতে অবশ্যই ভুলবেন না কিন্তু, লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজে
[pullquote align="normal"]
loading...
loading...
[/pullquote]

No comments